BHP BLOG

BHP BLOG

Google Web Search Gadget

শ্রীকৃষ্ণ এবং অর্জুন

শ্রীকৃষ্ণ এবং অর্জুন
অর্জুন তোমার আমার বহুবার জন্ম হয়েছে। সে কথা তোমার মনে নেই, সবই আমার মনে আছে।

Monday, March 17, 2014

>>>ইরানের আইনসভা পুরুষদেরকে নিজের দত্তক কন্যা সন্তাদেরকে বিয়ের অনুমোদন দিল>>>



গত বছর ইরানের আইনপ্রনেতারা একটি আইন পাশ করে যার ফলশ্রুতিতে সেখানে যে কোন পুরুষ তাদের নিজেদের পালিত কন্যাদেরকে বিয়ে করতে পারবে। শুধুমাত্র তাদের বয়স ১৩ হলেই হবে। এই ঘৃণিত আইনটি নাকি সে দেশের পার্লামেন্টে আলোচিত হয় ( জানি না কারা কি ভাবে কোন রুচিতে এটা নিয়ে আলোচনা করতে পারে) ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩ সালে ইরানের পার্লামেন্টে এই আইন পাশের ফলে সেখানে দত্তক নেয়া পরিবার গুলোর পুরুষেরা তাদের কন্যা সন্তানকে বিয়ে করতে পারবে ।

ইরানের গার্ডিয়ান কাউন্সিলের একটি অংশ আছে যারা যে কোন আইন পাশ করার আগে ইসলামি এবং শরিয়া দৃষ্টিতে সেই আইনের বৈধতা নিয়ে আলোচনা করে থাকে । তাদের অনুমতিক্রমে ইরানে এই ঘৃণিত, নৈতিকতা বিবর্জিত আর সভ্যতার পরিপন্থি আইনটি পাশ করা হল।

এই সভ্যতা আর নীতি বিবর্জিত আইনটি পাশের পর বিশ্বব্যাপী নিন্দা জানানো হয়,অনেকেই একে বলেছেন এটা একধরনের পেডলফিয়ার নামান্তর,যৌন বিকৃতির এক চরম অবস্থার।এতে ওইসব সমাজে পেডলফিয়াকে তথা এই চরম যৌন বিকৃতিকে আইনগত বৈধতা দিয়ে দিল।কিন্তু বরাবরের মত ইসলামি দেশ গুলো এবং ভারতের মুসলিম গণ নীরব।অথচ এরাই তীব্র আক্রোশে মাঝে মাঝেই ফেটে পড়ে মানুষের জীবন হানী ঘটায় দফায় দফায় এই অজুহাতে যে তাদের ধর্মীয় মূল্যবোধে নাকি আঘাত করা হয়। এখন প্রশ্ন আসতে পারে, যদি কারো মতবাদের মূল্যবোধ এতটা বিকৃত, হীন, নির্লজ্জ,মানবাতা- নীতি- নৈতিকতা বিবিরজিত, মনুষ্য সভতার পরিপন্থী এবং মানব সভতার জন্য ব্যাধি স্বরূপ হয়ে ওঠে তাহলে সে মূল্যবোধকে আদৌ মুল্য দেবার দরকার আছে কি? এই আইন মুসলিম কোন দেশ পাশ করতেই পারে যেখানে তাদের দাবীকৃত বা কথিত প্রেরিত পুরুষও নিজের পুত্র সন্তানের স্ত্রী অর্থাৎ পুত্রবধুকে বিয়ে করার মত এমন বিকৃত ও হীন মানসিকতার হন। তাই অবাক হবেন না আপনারা।

এই কথা গুলো বলার কোন ইচ্ছা আমার ছিল না। কিন্তু কিছুদিন আগে অন্তরজালের এক কুখ্যাত হিন্দুবিদ্বেষী আমার ওয়ালে এসে হিন্দু ধর্মের সমালচনা করেছিল।কিন্তু এরা যদি একবার নিজের রোগগ্রস্ত দেহের দিকে একটু দৃষ্টি দিত তাহলে সম্ভত নিজেরাই ঘেন্নায় কুঁকড়ে যেত।

কিছু নিউজ লিঙ্কঃ
http://www.dawn.com/news/1047402/iran-bill-allows-men-to-marry-adopted-daughters
http://www.theguardian.com/world/2013/sep/26/iran-lawmakers-men-wed-adopted-daughters
http://www.dailymail.co.uk/news/article-2442270/Iran-passes-marriage-law-allowing-men-wed-13-year-old-adopted-daughters.html
http://www.examiner.com/article/iran-passes-bill-allowing-men-to-marry-adopted-daughters
http://www.timesofearth.com/email/iran-lawmakers-pass-bill-allowing-men-to-marry-adopted-daughters-from-age-13.html
http://www.crin.org/en/library/news-archive/iran-lawmakers-pass-bill-allowing-men-marry-adopted-daughters-0
http://www.jihadwatch.org/2013/10/iran-lawmakers-pass-bill-allowing-men-to-marry-their-adopted-daughters-as-young-as-13-this-bill-is-l
http://defence.pk/threads/iran-lawmakers-pass-bill-allowing-men-to-marry-adopted-daughters.281153/

লিখেছেনঃ Arya Kshatriya
https://www.facebook.com/arya.kshatriya.9

Friday, March 7, 2014

বর্বরদেশ সৌদি আরবে অমুসলিমদের দুরাবস্থা



সৌদি আরবে ইসলাম ছাড়া অন্য কোন ধর্মের প্রতি বিন্দুমাত্র সম্মান দেখান হয় না। সৌদি সরকারী নীতি হচ্ছে: ইসলাম ব্যতীত অন্য সব ধর্মই মিথ্যা; শুধুমাত্র ইসলামই সত্যিকার ধর্ম। এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য গোঁড়ামিপূর্ণ সৌদি সরকারের নীতি হচ্ছে যে কোন প্রকারেই হউক যতবেশি সম্ভব, এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বিধর্মীদের ইসলাম ধর্মে দিক্ষিত করতে হবে। সেজন্য অ মুসলিমদের ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে সরকারের এবং ধর্ম দপ্তরের একটি প্রধান সক্রিয় ক্রিয়াকলাপ। যে সব বিধর্মীরা ইসলাম গ্রহণ করে তাদেরকে আমাদের সরকার ঢালাওভাবে পুরস্কৃত করে থাকে। এই প্রক্রিয়াকে উৎকোচ দ্বারা অ মুসলিমদের ইসলামে প্রবেশের রাস্তা প্রদানই বলা চলে। অনেক ক্ষেত্রে বিধর্মীদের উপর এমন জোরজবরদস্তিও চালান হয়—যাতে কোন কোন বিধর্মীর ইসলামে অনুপ্রবেশ ছাড়া গত্যন্তর থাকে না। যেহেতু সৌদি আরবে অ মুসলিমদের জঘণ্য প্রাণী হিসাবে গণ্য করা হয়, তাই যে সব ইসলামী ধর্ম প্রচারক এবং খাদেমরা ঔ সব ঘৃণিত পশুসম বিধর্মীদের ইসলামে দীক্ষিত করে তাদেরকে সরকারীভাবে প্রচুর উপঢৌকন দেওয়া হয়।


সৌদি আরবে অ মুসলিমদের প্রতি অবাধ বৈষম্য ও বিরাগ একেবারে সোজাসুজি ভাবে প্রকাশ করা হয়। এই বৈষম্যের সূত্রপাত হয় আকামা অথবা পরিচিতি পত্রের দ্বারা: যেমন লাল পরিচিতি পত্র (লাল কার্ড) হচ্ছে অ মুসলিমদের জন্যে এবং সবুজ পরিচিতি পত্র (সবুজ কার্ড) হচ্ছে মুসলমানদের জন্যে। মুসলিম এবং অ মুসলিমদের কর প্রথাও ভিন্ন রকম। সভ্য জগতে এ প্রক্রিয়াকে দেখা হবে খোলাখুলি, পরিষ্কার এবং অতি সতর্ক ভাবে প্রণীত সরকারী জাতিবিদ্বেষী নীতিমালা হিসেবে। আমার মনে হয় সৌদি আরবের এই নীতিমালা অতি সহজেই অধুনালুপ্ত দক্ষিণ আফ্রিকার জাতিবিদ্বেষী নীতিকেও হার মানায়।
সৌদি আরবে বিধর্মীদের উপস্থিতি কোন রকমে শুধুমাত্র বরদাস্ত করা হয়। এখানে অ মুসলিমদের ধর্মের আচার অনুষ্ঠান অথবা উপাসনালয় তৈরীর কোন অধিকারই নাই। একজন সৌদির উপস্থিতিতে কোন বিধর্মী তার ধর্মের রীতি, প্রথা অথবা আচার প্রকাশ করা নিষেধ। এমনকি কোন সৌদির উপস্থিতিতে অ মুসলমানরা একে অপরকে সাদর সম্ভাষণ জানাতে পারেনা। কোন বিধর্মীর যদির বুকের পাটা থাকে যে সে এই সব নিয়ম কানুন বরখেলাফ করবে তবে তাকে অবিলম্বে সৌদি আরব থেকে বহিষ্কার করা হয়। সৌদি আরবে কোন অ মুসলিম কোন ক্রমেই একজন মুসলিম নারীকে বিবাহ করতে পারে না—এটা সম্পূর্ণভাবে বেআইনি। বে সৌদিকে, তা জন্মসূত্রেই হোক অথবা স্বভাবিকিকরণে (নেচারালাইজ্‌ড) হোক সৌদি নাগরিকত্ব দেওয়া হয় না। আজকাল অবশ্য এই কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল করা হয়েছে, কিন্তু এক অ মুসলিম কোনক্রমেই সৌদি নাগরিকত্ব পাবেনা।
এ ছাড়াও আরো একটি আইন হচ্ছে যে বিধর্মীরা সৌদি আরবে কোন বিদ্যালয় স্থাপন করতে পারেনা।

যেসব বিধর্মীদের তাদের জন্যে পরিবেষ্টিত স্থানে বাস করার সৌভাগ্য হয়েছে, তারা গোপনে শুধুমাত্র ঐ নির্দিষ্ট স্থানেই তাদের ধর্ম পালন করতে পারে। কিন্তু তা হতে হবে একেবারেই নিভৃতে—মুসলমানদের চক্ষুর অন্তরালে। এর অর্থ হো্‌ল, এই বিধর্মীরা তাদের জন্য নির্দিষ্ট স্থানে বন্দীর মত থাকবে। ওরা কোনক্রমেই কোন মুসলিমকে তাদের গৃহে আমন্ত্রণ জানাতে পারবে না।
রমজান মাসে সৌদি সরকার অ মুসলিমদের নির্দেশ দেয় তারা যেন মুসলমানদের প্রতি সম্মান দেখায় এবং কোনভাবে মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত না করে। বিধর্মীদের আদেশ দেওয়া হয় তারা যেন মুসলিমদের সামনে খাওয়া দাওয়া না করে। কোন বিধর্মী এই আদেশ অমান্য করলে তাকে সৌদি আরব থেকে বহিস্কৃত করা হয়। আপনারা হয়ত ভাববেন শুধুমাত্র খাওয়া দাওয়া করার জন্যএটা কি করে হতে পারে? কিন্তু সৌদি আরবে এটাই নিয়ম। এই জন্য রমজান মাস শুরু হবার সাথে সাথেই সৌদি সরকার বিধর্মীদের জানিয়ে দেয় যে, যদি ঘরের বাইরে তাদেরকে খেতেই হয়, তবে তা যেন তারা করে লুকিয়ে, মুসলিমদের দৃষ্টির অন্তরালে। আজকাল আমার কেমন যেন মনে হচ্ছে যে খুব শীঘ্রই হয়ত ইউরোপে বসবাসকারী মুসলিমরাও এই ধরণের দাবী করে বসবে।
সৌদি শরিয়া আইন অনুযায়ী সমস্ত অ মুসলিম নারীদেরকে জোরপূর্বক মুসলিম পোষাক পরতে বাধ্য করা হয়। এই ইসলামী পোষাকের নাম হচ্ছে আবায়া। কোন বিধর্মী রমণী যদি আবায়া পরিধানে অপরাগতা দেখায় তবে ধর্মীয় আইন নির্বাহণ কর্তৃপক্ষ ঐ অ মুসলিম রমণীর জীবন দূর্বিসহ করে ফেলবে।
আমি আগেই বলেছি যে সৌদি সরকার বিধর্মীদের ইসলামে ধর্মান্তরিত করার জন্য প্রচণ্ড চাপ প্রয়োগ করে। সত্যি বলতে কি আমি নিজের চক্ষে এই ধরণের অনেক জোরজবরদস্তিমূলক ধর্মান্তর অনুষ্ঠান দেখেছি। স্বীকার করতেই হবে যে এই কাজে ধূর্ত ও কৌশলী ওহাবী ইসলামীরা খুব জয়ী হচ্ছে। এই ধরণের দমণনীতি ও ইসলামের প্রচার চিরস্থায়ী করার উদ্দেশ্যে ধর্মান্তর অনুষ্ঠানগুলো সৌদি আরবের সব বিশিষ্ট সংবাদপত্রে ধুমধামের সাথে ফলাও করে প্রকাশ করা হয়। এই সব প্রচারে নতুন মুসলিমদের ছবিও দেখানো হয়।
সৌদি আরবে কোন বিধর্মী ইসলামে দীক্ষিত না হওয়া পর্যন্ত কোন রকম দান খয়রাত (যাকাত) পেতে পারেনা। সে জন্য দরিদ্র দেশ থেকে আগত অ মুসলিমদের এই যাকাতে প্রলোভিত করা হয় যাতে করে তারা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে এবং ধনবান সৌদি মুসলিমরা দান খয়রাতের মাধ্যমে আল্লাহ্‌র আশীর্বাদ লাভ করে।
এখন তুলনা করুন অ মুসলিমদের প্রতি সৌদিদের এই ঘৃণিত ব্যবহারের সাথে কাফেরদের দেশে মুসলমানদের কি ভাবে আপ্যায়িত করা হয়।
সৌদি আরব বিশ্বের সর্বত্র, বিশেষত, আমেরিকা ও ইউরোপে মসজিদ বানায়। কিন্তু অ মুসলিমরা সৌদি আরবে তাদের ধর্ম পালন করতে পারেনা। কাফেরদেশে অবস্থানরত মুসলমানরা তাদের পছন্দমত যে কোন মহিলাকে বিবাহ করতে পারে। এইসব মুসলমানরা তাদের ইচ্ছামত ইসলামী বিদ্যালয়ও তৈরী করতে পারে। এইসব মুসলমানরা হয়ত জন্মগতসুত্রে অথবা স্বাভাবিকীকরণের (ন্যাচারালাইজড্‌) মাধ্যমে কাফের দেশের নাগরিকত্ব পেতে পারে। কিন্তু সৌদি আরবে অ মুসলিমদের এই ধরণের কোন অধিকার নেই। কাফেরদের দেশে মুসলমানদের ইসলাম প্রচারের পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে। এই জন্যেই এই সব দেশের মুসলমানেরা আজ উঠেপড়ে লেগেছে কাফেরদের ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত করতে।
পাশ্চাত্য দেশের মুসলমানেরা যাচ্ছেতাই ভাবে অন্য ধর্ম, বিশেষ করে ঈহুদি ও খৃষ্টান ধর্মের সমালোচনা করতে পারে, কিন্তু মুসলিম দেশে বসবাসকারী কাফেররা আইনগত ভাবে বাঁধা যে ইসলামের সমালোচনা করে একটা টুঁ শব্দ করতে পারবেনা—কেননা ইসলাম হচ্ছে পবিত্র, মহান ও সত্য। আমরা সবাই জানি যে এইসব ইসলামী দেশগুলোতে ইসলামের নিন্দা অথবা সমালোচনার মানেই হচ্ছে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত হওয়া।
কিন্তু হায়, এখন দেখা যাচ্ছে কাফেরদের দেশে মুসলিমরা যে সব অধিকার এবং সম্মান উপভোগ করছে তা তাদের জন্যে অপ্রতুল। এইসব দেশের মুসলমানদের খাই অনেক বেশী—তারা আরো চায়। সে জন্যেই নিরীহ আমেরিকান জনতার উপর মুসলিমরা ঘটালো ৯/১১| আর এই জন্যেই শুধুমাত্র মুষ্টিমেয় কয়েকজন মুসলিম বিন লাদেনকে এই বর্বর হামলার জন্য নিন্দা করেছে। দেখা যাচ্ছে কাফেরদের প্রতি এই নৃশংসতা সম্পূর্ণভাবে  ইসলামী মতবাদের অনুকুলে। আর এই জন্যেই দেখা যায় যে সংখ্যাগরিষ্ট মুসলিমরা বিন লাদেনের সমর্থক। আমি আজ পর্যন্ত সৌদি আরবের কোন ইমামকে বলতে শুনি নাই যে বিন লাদেন ভুল করেছে। আজ পর্যন্ত কোন ইমাম ফতোয়া দেয় নাই যে বিন লাদিন একজন মুসলিম নয়, অথবা বিন লাদেন এক কাফের। সরাসরি না হলেও সব ইমাম গোপনে বিন লাদেনের সমর্থক—এতে আমার কোনই সন্দেহ নেই। যেহেতু আমি সৌদি আরবের স্থানীয় বাসিন্দা এবং যেহেতু আমার জন্ম এবং লালনপালন এই দেশেই, আমি লোকজনের মুখে যা শুনি এবং দেখি তাতে আমি দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি যে সৌদি জনগণ বিন লাদেনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। সে একাই অগুনতি কাফের হত্যা করেছে তাতে আপামর সৌদি জনগণ বেজায় খুশী। আমি টেলিভিশনে দেখলাম একজন প্রসিদ্ধ শেখ বিন লাদেনের উচ্ছ্বসিত প্রসংশা করছে যদিও ঐ শেখ স্বীকার করে নিল যে বিন লাদেনের কার্যের জন্য সৌদি আরবের সুনাম ব্যাহত হবে।
বিস্ময়ের ব্যাপার হচ্ছে যখন মুসলমানেরা ধৃষ্টতা দেখায় ফ্রান্সের আইন, যাতে সমস্ত বিদ্যালয়ে ধর্মীয় নিশানাকে নিষেধ করা হয়েছে, তার সমালোচনা করে। মুসলমানদের এই কুম্ভিরাশ্রুপাত কপটতা ও ভণ্ডামী ছাড়া কিছু নয়। মুসলমানরা মুসলিম দেশে অবস্থানরত কাফেরদেরকে তাদের ধর্মীয় অধিকার খর্ব করবে, কিন্তু তারা কাফেরদের দেশে চায় তাদের সেকেলে ধর্মের পূর্ণ ধর্মীয় অধিকার। চিন্তা করলে আমি আশ্চর্য হয়ে যাই এ কেমন অর্থহীন এক আবদার।
আজ ইউরোপ এক ভয়াবহ ও চুড়ান্ত বিপদের সম্মুখীন। এই বিপদ হচ্ছে সর্বত্র ইসলামের অনুপ্রবেশ। এই প্রসঙ্গে নেদারল্যাণ্ডের ভ্যান গঁগের কথা চলে আসে। তাকে দিনে দুপুরে, প্রকাশ্যে, নির্মমভাবে খুন করল এক ইসলামী জিহাদী। আমি নিশ্চিত ভাবে বলতে পারি যে ভবিষ্যতে এই রকম প্রচুর হত্যাকাণ্ড ঘটবে, যার হোতা হবে ইউরোপ এবং আমেরিকায় বসবাসী ইসলামী জিহাদীরা। এই ভাবেই অনেক নিরীহ ইউরোপিয়ান ও আমেরিকানকে জীবন দিতে হবে। তাদের একমাত্র অপরাধ হবে যে তারা কাফের। আমি ইসলামকে খুব ভালোভাবে জানি এবং আরো বলতে চাই যে আমি সৌদি আরবে বসবাস করি তাই এ ব্যাপারে আমার মনে কোন সন্দেহ নাই।
অনেক পাঠক আজ ইসলামের স্বরূপ দেখতে পারছেন। তার কারণ হলো ইন্টারনেট। আমরা জানতে পারছি ইসলাম আজ আধুনিক সভ্যতার জন্য বিরাট হুমকি।
আসলে আমি এখানে নতুন কিছুই লিখি নাই। যে ব্যাপারটা আমাকে উৎসাহিত করল এই রচনাটি লেখার জন্যে তা খুলে বলি। কয়েকদিন আগে আমাকে এক ই-মেইলে কতকগুলি ড্যানিশ জিনিষের তালিকা দেয়া হল এবং বলা হল ঐ সব জিনিষগুলো বয়কট করতে। আমার মনে হচ্ছে বিশ্ব এখন এক চরম পরীক্ষার সম্মূখীন। এটা হচ্ছে একদিকে ইসলাম ও অন্যপক্ষে সভ্য বিশ্ব—এই দুই শক্তি এখন মুখোমুখি। যে সব কাফেররা এখনও মনে করে যে কোথাও হয়ত ‘শান্তির’ অথবা ‘মডারেট’ ইসলাম আছে তাদের জন্যে এই মুহাম্মদের ব্যাঙ্গচিত্রের ঘটনাটি হচ্ছে তাদের নিদ্রা ভঙ্গ করার ডাক।
এখানে বলা যায় যে সংগত কারনেই মুহাম্মদের ব্যাঙ্গচিত্র হয়তো কিছু মুসলিমদের জন্যে অপমানকর মনে হতে পারে। কিন্তু এই ব্যাঙ্গচিত্রগুলো হয়তো একজন অথবা কয়েকজনের কাজ হতে পারে। এমনও হতে পারে যে এটা কোন সংবাদপত্রের কাজ। কিন্তু তার জন্য কেন মুসলিমরা সমগ্র ডেনমার্কের নাগরিকদের শাস্তি দিবে? এরূপ আচরণ কি ন্যায়সঙ্গত? যখনই আমি আমার বন্ধুদের এই প্রশ্ন করলাম তখনই তারা ক্রুদ্ধ হয়ে গেল। ওদের মতে সমগ্র ইউরোপ হচ্ছে ইসলামের শত্রু, ইউরোপ কোনদিনই ইসলামের সমালোচনা থেকে বিরত হবে না।তাই এই শাস্তি তাদের যথার্থই প্রাপ্য।
আমি বললাম তা হলে আমেরিকা এবং ইউরোপ যে মুসলিমদের সন্ত্রাসি মনে করে তা খুবই যুক্তিযুক্ত ও সঠিক। আমার বন্ধুরা আমার যুক্তি খণ্ডন করতে না পেরে আরো রেগে গেল। ওরা আমাকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল—হয় আমি মুসলিমদের সাথে নতুবা কাফেরদের পক্ষে। কিন্তু আমি তো কারো পক্ষেই নেই—আমি শুধু ন্যায় ও সুবিচারের পক্ষে।
আমরা মুসলিমরা শুধুমাত্র অ মুসলিমদের সমালোচনা করেই ক্ষান্ত হই না। সত্য কথা হলো মুসলিমরা খুবই আবেগপ্রবণ, এবং অনেক ক্ষেত্রেই বিচার-বুদ্ধি দিয়ে চিন্তা করেনা। মুসলিমরা বোঝেনা যে আমেরিকা ও ইউরোপ যদি ইসলামের জাতিবিদ্বেষীমূলক পথ অনুসরণ করে তবে অতি অল্প সময়েই তারা সমগ্র মুসলিম বিশ্বকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে পারে। মুসলিমরা খুবই সৌভাগ্যবান যে কাফেররা ইসলামের নীতি অনুসরণ করে না।
আজ আমি দেখি মুসলিমরা ডেনমার্ক সরকারকে ক্ষমা চাইতে বলছে—সেই মৃত মুহাম্মদের জন্যে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে সত্যিকার ক্ষমা চাওয়া উচিত তাদের নয় কি যারা গোটা বিশ্ব জুড়ে অ মুসলিমদের প্রতি সীমাহীন বৈষম্য করে?
খালেদ ওলীদ
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০০৬

Tuesday, March 4, 2014

২০১৪ সালে বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন পরবর্তী হিন্দু নির্যাতন

২০১৪ সালে বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন পরবর্তী হিন্দু নির্যাতন হয় ব্যাপক ভাবে।বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন ভোট দিতে গিয়েছে এমন অভিযোগ করে নির্বাচন বর্জনকারী দল বি এন পি জামাত এবং অন্যান্য মৌলবাদী দলের সমর্থকেরা দেশের বিভিন্ন জায়গাতে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি ঘর, মন্দির, সম্পত্তি ভাংচুর ও লুট করে।কয়েকটি জায়গাতে হিন্দু নারী দের কে ধর্ষণ করে http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article727599.bdnews http://www.banglamail24.com/index.php?ref=ZGV0YWlscy0yMDE0XzAxXzEwLTEwNS03MTk4Ng%3D%3D 
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/120487/%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87_%E0%A6%97%E0%A7%83%E0%A6%B9%E0%A6%AC%E0%A6%A7%E0%A7%82%E0%A6%95%E0%A7%87_%E0%A6%A7%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%A3_%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article728155.bdnews

এবং অনেক জায়গাতে তাদের উপর শারীরিক নির্যাতন করা হয়। বেশ কিছু জায়গাতে শাসক দল আওয়ামীলীগএর লোকজন হিন্দু নির্যাতনের সাথে জড়িত ছিল, তার প্রমান পাওয়া যায়। এসব খবর গুলোর কিছু সংবাদ পত্রের লিঙ্ক দেয়া হল;














 // http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article727599.bdnews 
http://www.banglamail24.com/index.php
ref=ZGV0YWlscy0yMDE0XzAxXzEwLTEwNS03MTk4Ng%3D%3D http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/120487/%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87_%E0%A6%97%E0%A7%83%E0%A6%B9%E0%A6%AC%E0%A6%A7%E0%A7%82%E0%A6%95%E0%A7%87_%E0%A6%A7%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%A3_%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article728155.bdnews// (Rape Case)
http://www.amadersh0moy.com/content/2014/01/11/news0449.htm
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/120564/%E0%A6%B8%E0%A6%82%E0%A6%96%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%98%E0%A7%81_%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A7%87_%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A7%E0%A6%B0_%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A7%87%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A6%9B%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BE
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/122253/%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%B0_%E0%A6%9C%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A7%9F_%E0%A6%86%E0%A6%B0%E0%A6%93_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0_%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8_%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE
http://www.bd-pratidin.com/2014/01/17/38243
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/125449/%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
http://www.alokitobangladesh.com/last-page/2014/01/17/46639
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/126331/%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%8B%E0%A6%9C%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/127030/%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%81%E0%A6%A6%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%B8%E0%A6%82%E0%A6%96%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%98%E0%A7%81%E0%A6%B0_%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%A4_%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/127053/%E0%A6%B8%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%97%E0%A6%BE%E0%A6%81%E0%A7%9F%E0%A7%87_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/127822/%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%8B%E0%A6%9C%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0_%E0%A6%93_%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A7%9F%E0%A6%A3%E0%A6%97%E0%A6%9E%E0%A7%8D%E0%A6%9C%E0%A7%87_%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8
http://www.kalerkantho.com/online/country-news/2014/01/21/43670#sthash.OuZB4yM9.dpuf
http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article733518.bdnews
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/130495/%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9F%E0%A7%87_%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%9F%E0%A6%BF_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0_%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%BF
http://www.kalerkantho.com/print-edition/news/2014/01/25/44980
http://bdlive24.com/home/details/14352/%E0%A6%AB%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%A6%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8-#.UuTUO3MzLYU.facebook
http://www.kalerkantho.com/online/country-news/2014/01/26/45444
http://www.risingbd.com/detailsnews.php?nssl=112169070b04ff94e186da251936bf06#.UujlgYVxXIU
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/135262/%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0_%E0%A6%93_%E0%A6%8F%E0%A6%95_%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/139060/%E0%A6%9A%E0%A7%8C%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%BF_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
http://m.bdnews24.com/bn/detail/home/739241
http://www.bd-pratidin.com/2014/01/21/39153
http://www.kalerkantho.com/online/country-news/2014/02/04/48704
http://www.poriborton.com/post/47170/%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%B8%E0%A6%B2%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8-%E0%A6%B9%E0%A6%93-%E0%A6%85%E0%A6%A5%E0%A6%AC%E0%A6%BE-%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%9A%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%93
http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article744638.bdnews
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/150684/%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/141406/আশ্রমে_হামলা_প্রতিমা_ভাঙচুর
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/147313/ডিমলায়_প্রতিমা_ভাঙচুর_বাড়িতে_হামলা

http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article743953.bdnews
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/150684/প্রতিমা_ভাঙচুর
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/152356/%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%97%E0%A7%87%E0%A6%B0%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%9F%E0%A7%87_%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%87_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0
 http://swadesh24.com/details.php?b&id=22605#sthash.FIaVFFuz.dpuf
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/154173/%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A6%B2%E0%A6%AB%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A7%81_%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8_%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%9F%E0%A6%BF_%E0%A6%98%E0%A6%B0_%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A7%9C%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/156733/%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A7%80%E0%A6%A8%E0%A6%97%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A8_%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%88%E0%A6%B0%E0%A7%87_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0\
http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article751124.bdnews
http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/161131/%E0%A6%9D%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%A0%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A7%81_%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87_%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE_%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE_%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%99%E0%A6%9A%E0%A7%81%E0%A6%B0


মিরপুরের কসাই খ্যাত কাদের মোল্লার রায় পরবর্তী হিন্দু নির্যাতন

১৯৭১ সালে মানবতা বিরোধী অপরাধে দণ্ডিত মিরপুরের কসাই খ্যাত কাদের মোল্লার রায় পরবর্তী হিন্দু নির্যাতন এর বিভিন্ন সংবাদ পত্রের লিঙ্কঃ
















http://www.thedailysangbad.com/index.php?ref=MjBfMTJfMjRfMTNfMV8xM18xXzE1MTAxNA%3D%3D#sthash.B3brl7D7.dpuf



Labels

বাংলা (171) বাংলাদেশে হিন্দু নির্যাতন (22) ethnic-cleansing (17) ভারতীয় মুসলিমদের সন্ত্রাস (17) islamic bangladesh (13) ভারতে হিন্দু নির্যাতন (12) : bangladesh (11) হিন্দু নির্যাতন (11) সংখ্যালঘু নির্যাতন (9) সংখ্যালঘু (7) আরব ইসলামিক সাম্রাজ্যবাদ (6) minority (5) নোয়াখালী দাঙ্গা (5) হিন্দু (5) hindu (4) minor (4) নরেন্দ্র মোদী (4) বাংলাদেশ (4) বাংলাদেশী মুসলিম সন্ত্রাস (4) ভুলে যাওয়া ইতিহাস (4) love jihad (3) গুজরাট (3) বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন (3) বিজেপি (3) ভারতে অনুপ্রবেশ (3) মুসলিম বর্বরতা (3) হিন্দু নিধন (3) George Harrison (2) Julia Roberts (2) List of converts to Hinduism (2) bangladesh (2) কলকাতা (2) গুজরাট দাঙ্গা (2) বাবরী মসজিদ (2) মন্দির ধ্বংস (2) মুসলিম ছেলেদের ভালবাসার ফাঁদ (2) লাভ জিহাদ (2) শ্ত্রু সম্পত্তি আইন (2) সোমনাথ মন্দির (2) হিন্দু এক হও (2) হিন্দু মন্দির ধ্বংস (2) হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা (2) Bhola Massacre (1) English (1) april fool. মুসলিম মিথ্যাচার (1) converted hindu celebrity (1) converting into hindu (1) dharma (1) facebook (1) gonesh puja (1) gujrat (1) gujrat riot (1) jammu and kashmir (1) om (1) religion (1) roth yatra (1) salman khan (1) shib linga (1) shib lingam (1) swami vivekanada (1) swamiji (1) অউম (1) অক্ষরধাম মন্দিরে জঙ্গি হামলা ২০০২ (1) অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরী (1) অর্পিত সম্পত্তি আইন (1) আওরঙ্গজেব (1) আদি শঙ্কর বা শঙ্করাচার্য (1) আর্য আক্রমণ তত্ত্ব (1) আসাম (1) ইতিহাস (1) ইয়াকুব মেমন (1) উত্তরপ্রদেশ (1) এপ্রিল ফুল (1) ওঁ (1) ওঁ কার (1) ওঁম (1) ওম (1) কবি ও সন্ন্যাসী (1) কাদের মোল্লা (1) কারিনা (1) কালীঘাট মন্দির (1) কাশী বিশ্বনাথ মন্দির (1) কৃষ্ণ জন্মস্থান (1) কেন একজন মুসলিম কোন অমুসলিমের বন্ধু হতে পারে না? (1) কেন মুসলিমরা জঙ্গি হচ্ছে (1) কেশব দেও মন্দির (1) খ্রিস্টান সন্ত্রাসবাদ (1) গনেশ পূজা (1) গুজরাটের জঙ্গি হামলা (1) জাতিগত নির্মূলীকরণ (1) জামাআ’তুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (1) জেএমবি (1) দেশের শত্রু (1) ধর্ম (1) ধর্মযুদ্ধ (1) নবদুর্গা (1) নববর্ষ (1) নালন্দা (1) নালন্দা বিশ্ববিদ্যালয় (1) নোয়াখালি (1) পঞ্চ দেবতার পূজা (1) পহেলা বৈশাখ (1) পহেলা বৈশাখ কি ১৪ এপ্রিল (1) পাকিস্তানী হিন্দু (1) পূজা (1) পূজা ও যজ্ঞ (1) পূজার পদধিত (1) পৌত্তলিকতা (1) ফেসবুক (1) বখতিয়ার খলজি (1) বরিশাল দাঙ্গা (1) বর্ণপ্রথা (1) বর্ণভেদ (1) বলিউড (1) বাঁশখালী (1) বিহার (1) বুদ্ধ কি নতুন ধর্ম প্রচার করেছেন (1) বৈদিক ধরম (1) বৌদ্ধ দর্শন (1) বৌদ্ধ ধর্ম (1) ভারত (1) মথুরা (1) মরিচঝাঁপি (1) মানব ধর্ম (1) মিনি পাকিস্তান (1) মীরাট (1) মুক্তমনা (1) মুক্তিযুদ্ধ (1) মুজাফফরনগর দাঙ্গা (1) মুম্বাই ১৯৯৩ (1) মুলতান সূর্য মন্দির (1) মুলায়ম সিং যাদব (1) মুসলিম তোষণ (1) মুসলিম ধর্ষক (1) মুসলিমদের পুড়ে মারার ভ্রান্ত গল্প (1) মুহাম্মদ বিন কাশিম (1) মূর্তি পুজা (1) যক্ষপ্রশ্ন (1) যাদব দাস (1) রথ যাত্রা (1) রথ যাত্রার ইতিহাস (1) রবি ঠাকুর ও স্বামীজী (1) রবি ঠাকুরের মা (1) রবীন্দ্রনাথ ও স্বামীজী (1) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (1) রিলিজিওন (1) রুমি নাথ (1) শক্তিপীঠ (1) শঙ্করাচার্য (1) শিব লিংগ (1) শিব লিঙ্গ (1) শিব লিঙ্গ নিয়ে অপপ্রচার (1) শ্রীকৃষ্ণ (1) সনাতন ধর্ম (1) সনাতনে আগমন (1) সাইফুরস কোচিং (1) সালমান খান (1) সোমনাথ (1) স্বামী বিবেকানন্দ (1) স্বামীজী (1) হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্ম (1) হিন্দু জঙ্গি (1) হিন্দু ধর্ম (1) হিন্দু ধর্ম গ্রহন (1) হিন্দু বিরোধী মিডিয়া (1) হিন্দু মন্দির (1) হিন্দু শিক্ষার্থীদের মগজ ধোলাই (1) হিন্দুধর্মে পৌত্তলিকতা (1) হিন্দুরা কি পৌত্তলিক? (1) ১লা বৈশাখ (1) ১৯৭১ (1)

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Blogger Tips and TricksLatest Tips And TricksBlogger Tricks

সর্বোচ্চ মন্তব্যকারী